বিদগ্ধ ছদ্মনামে যিনি লিখেন তিনি সাহিত্য ভূবনের নগন্য প্রারাম্ভিক শিক্ষার্থী মাত্র। তাঁর কেতাবি শিক্ষা অন্য বিষয়ে হলেও তিনি মনে প্রাণে বিশ্বাস করেন, কবিতা উচ্ছন্যে যাওয়া এই সমাজ পরিবর্তনে জোয়ার তুলতে নাই বা পারুক, নিদেন পক্ষে সুহৃদ পাঠকের মন কিঞ্চিত হলেও আন্দোলিত করে। বিদ্বেষ ও অনাচারে ভরপুর রাষ্ট্র ও পারিবারিক ব্যবস্থার বিরুদ্ধে ব্যথিত আর্তনাদ হয়ে মুষ্টিমেয় কিছু জাগ্রাত হৃদয়ে আছড়ে পরুক কবিতার পংক্তিমালা এই তাঁর একান্ত কামনা।

বিদগ্ধ এর লেখা:

অনিয়মের তেপান্তরে

অনিয়মের তেপান্তরে আমি অনিয়মের তেপান্তরে হাবুডুবু খাই। (কারণ) নিয়ম ভাঙ্গার প্রয়াসে আমি প্রাণ খুঁজে পাই। ভয়কে আমি করব সাথী দুঃখ নিয়ে মাতামাতি। বিষন্নতায় দিতে ফাঁকি...

জীবনের পাথেয়

মরন যখন বরন হবে জীবন যাত্রার অস্তাচলে অন্তিম যাত্রার প্রাক্কালে আজরাইল যখন দৃষ্টি দিবে কলবেতে ঝড় উঠিবে... নিস্পলক দৃষ্টি দিয়ে অব্যক্ত কষ্ট নিয়ে পরকালের পাথেয়...

পরাজিত কাকুতি মিনতি…

পরাজিত কাকুতি মিনতি... কায়েমী, স্বার্থান্বেষী, গৃহপালিত লোলুপ এই প্রশাসন ব্যবস্থা আমি মানি না... মানি না... নিস্ক্রিয় খয়ের খাঁ উচ্ছনে যাওয়া বিচার ব্যবস্থা নিয়ে আমি নির্ভরতা...