ময়নূর রহমান বাবুল, জন্ম ১৯৫৭ সালের ৩০ আগস্ট। সিলেট জেলার ওসমানীনগর উপজেলাধীন খাপন গ্রামে। সরকারি এম সি কলেজ থেকে স্নাতক সমাপ্ত করেন। ১৯৯২ সাল থেকে যুক্তরাজ্যপ্রবাসী, ব্যবসায়ী। কলেজে অধ্যয়নকালীন ছাত্ররাজনীতিতে সক্রিয় সম্পৃক্ততা। এম সি কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত জি.এস এবং আশির দশকে বাম রাজনীতিতে দৃঢ় পদচারণা। কৃষক-ক্ষেতমজুরদের দাবি আদায় এবং স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে দীর্ঘ দিন কারাবরণ তার জীবনের একটি উল্লেখযোগ্য বিষয়। প্রকাশিত গ্রন্থ, গল্পগ্রন্থ- প্রত্যাশার প্রতিধ্বনি, নীল জলে নীল বিষ, নিগূঢ় পরম্পরা। কাব্যগ্রন্থ- স্বদেশ আমার মা আমার, ভালোবাসায় আগুন জ্বলে, ছিনিয়ে নেব, বিন্দু আমার বৃত্ত, হ্যাঁ জয়যুক্ত হলো, দুঃখ তবুও দাও, জলজোছনার দাবদাহে। ছড়াগ্রন্থ- ছড়া দুইছড়া, চড়া দামে ছড়া। প্রবন্ধগ্রন্থ- চোখের দেখা প্রাণের কথা। যৌথ সম্পাদিত : একাত্তরে সিলেট: স্মৃতিকথা, একাত্তরের স্মৃতিগুচ্ছ, প্রফেসর মোহাম্মদ আবদুল আজিজ সম্মাননা গ্রন্থ, সংহতি নির্বাচিত কাব্য সংকলন-৩, মুক্তিযুদ্ধের ধূলিপথের চারণ তাজুল মোহাম্মদ সম্মাননা গ্রন্থ। সম্পাদিত সংকলন : ঝংকার, মৃদুগুঞ্জন, প্রাণপলি, এবং যুক্তরাজ্যভিত্তিক মাসিক জর্নাল ‘সমাজ চেতনা’ প্রকাশনায় লন্ডন থেকে সর্ব ইউরোপীয় দায়িত্বে ছিলেন দীর্ঘদিন।

ময়নূর রহমান বাবুল এর লেখা:

হাত খারাপের অজুহাত

প্রতিকথা’র এবারের আয়োজন কবিদের গল্প। ভিন্ন ভিন্ন সময়ের ১০ জন কবি তাঁদের কবিতার জগৎ থেকে বেরিয়ে এসে লিখেছেন গল্প। অনেকের ধারনা কবিরা বোধ হয় গল্প...

সাম্যের সমতল

বীজ ভূমি কর্ষণ, বীজ বোনা, জল দেয়া আগাছা নিঙড়ানো আর দেখভাল সবই করতে হয়, দায়িত্ব আমার। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ভূমিতে নিশিদিন যে ফসল ফলাই...